Our Concern
Ruposhi Bangla
Hindusthan Surkhiyan
Radio Bangla FM
Third Eye Production
Ruposhi Bangla Entertainment Limited
Shah Foundation
Street Children Foundation
Anuswar Publication
January 25, 2021
Homeবিনোদনবন্ধুত্বের কোনও বয়স হয় বলে আমি মনে করি না: সৌমিত্র

বন্ধুত্বের কোনও বয়স হয় বলে আমি মনে করি না: সৌমিত্র

বন্ধুত্বের কোনও বয়স হয় বলে আমি মনে করি না: সৌমিত্র

‘বরুণবাবুর বন্ধু’ আসছে। আগামী ১০ জানুয়ারি। বরুণবাবুর বন্ধু কিন্তু যে কোনও সাধারণ ব্যক্তিত্ব নন। তাঁর বিশাল প্রভাব… ব্যাপক প্রতিপত্তি। তিনি আসছেন বলে বাড়ির সামনে মিডিয়ার ভিড়, বাড়ির লোকেদের কাছেও বরুণবাবুর দর বেড়ে গেছে বেশ কয়েক গুণ। কিন্তু কে তিনি?

রমাপদ চৌধুরীর ‘ছাদ’ গল্প অবলম্বনে আসছে অনীক দত্তের ‘অন্য’ ছবি ‘বরুণবাবুর বন্ধু’। অন্য ছবি কেন? অনীকের কথায়: “এর আগে আমার ছবি ‘ভূতের ভবিষ্যৎ’ অথবা ‘ভবিষ্যতের ভূত’ যে ধরনের ছিল তার থেকে সম্পূর্ণ অন্য স্বাদের ছবি ‘বরুণ বাবু…’। অনীক দত্তের ছবি মানেই যাতে সবাই না ভাবে তার মধ্যে টু-লাইনার থাকবেই, সারকাজম থাকবেই। এটা একেবারেই পারিবারিক ছবি। পরিবারের বিভিন্ন সদস্যের মধ্যে সম্পর্কের সমীকরণ নিয়েই এই ছবি।

ছবির মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি যদি ছবিটি করতে রাজি না হতেন তবে? অনীকের সাফ উত্তর: “করতাম না ছবিটা।” সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে কথায় কথায় প্রশ্ন করা হল, “ছাদ’-এ কী এমন রয়েছে যার জন্য আপনি ছবিটি করতে রাজি হলেন?” তিনি বললেন, ‘ময়ূরাক্ষী’ বা ‘বসু পরিবার’-এর মতো সিনেমা তো সবসময় পাওয়া যায় না। ‘ছাদ’ ভাল লাগল। তাই রাজি হলাম। আর এটাই তো আমার কাজ।’’

শীতের সন্ধেতে অনীক দত্তের বাড়িতে তখন আড্ডা ক্রমশ জমাটি হয়ে উঠেছে। ছিলেন অর্পিতা চট্টোপাধ্যায় এবং বিদিপ্তা চক্রবর্তীও। ছবিতে তাঁদেরও দেখা যাবে দু’টি উল্লেখযোগ্য চরিত্রে।

বিদিপ্তা জানালেন, তিনি বরুণবাবুর ছেলের বউ, যে সারা ছবি জুড়েই গান গেয়ে বেরিয়েছে। এই মুহূর্তে ব্যস্ততম অভিনেত্রী বললে কিছু ভুল বলা হবে না অর্পিতাকে। ‘বহমান’, ‘অব্যক্ত’, ‘বরুণবাবুর বন্ধু’, ‘হৃদপিণ্ড’…হাতে একের পর এক ছবি।

পরিচালক অনীক দত্তের প্রশংসায় পঞ্চমুখ তিনিও । বললেন, “অনীকদার মতো শিক্ষিত পরিচালক সত্যিই খুব কম’।

কথা বলতে বলতে কখন যে কলকাতা শহরে রাত বাড়তে লাগল খেয়াল ছিল না কারওরই। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ফিরে গেলেন তাঁর ছোটবেলায়, শেয়ার করলেন ছোটবেলার বন্ধুদের কথা…অন্যদিকে রাজনীতি, সিনেমা— সব এসে মিশল অনীকের সঙ্গে কথোপকথনে। হল গান গাওয়াও। অর্পিতা-বিদিপ্তা…দু’জনের গানের গলাও যে চমৎকার তা হয়তো অনেকেই জানেন না। বাইরে থেকে ভেসে আসা ট্রাফিকের আওয়াজ আর রবীন্দ্রসঙ্গীত, শীতের সন্ধে জমে গেল একেবারেই!

সূত্র: আনন্দবাজার

Share With:
Rate This Article
No Comments

Leave A Comment