Our Concern
Ruposhi Bangla
Hindusthan Surkhiyan
Radio Bangla FM
Third Eye Production
Anuswar Publication
Ruposhi Bangla Entertainment Limited
Shah Foundation
Street Children Foundation
June 18, 2024
Homeভারতবিলাওয়ালকে সন্ত্রাসের রক্ষক বললেন জয়শঙ্কর

বিলাওয়ালকে সন্ত্রাসের রক্ষক বললেন জয়শঙ্কর

বিলাওয়ালকে সন্ত্রাসের রক্ষক বললেন জয়শঙ্কর

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারিকে সন্ত্রাসবাদের রক্ষক, সমর্থক ও মুখপাত্র বললেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর। গোয়ায় সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের(এসসিও) বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি। ১২ বছর পর এই প্রথম কোনো পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতে এলেন। তবে তাকে স্বাগততো জানানই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, উল্টো তাকে সন্ত্রাসবাদের রক্ষক বলে আক্রমণ করেছেন তিনি। এর ফলে শিগগিরই দুই দেশের উত্তেজনা কমার আর সুযোগ দেখছেন না বিশ্লেষকরা।

ডয়চে ভেলের খবরে জানানো হয়, পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই সফরের ফলে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যেকার শত্রুতামূলক সম্পর্কের উন্নতি হবে বলে আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু জয়শঙ্কর সব আশায় পানি ঢেলে দিলেন। অতিথি বিলাওয়ালকে তিনি অত্যন্ত কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন।

চীন, রাশিয়া-সহ একাধিক দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদা করে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেছেন জয়শঙ্কর। তবে এ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ছিলেন বিলাওয়াল। এ নিয়ে তাকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। আর তার জবাবেই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, যে দেশ সন্ত্রাসবাদের শিকার, তারা কখনও সন্ত্রাসবাদের মদতদাতাদের সঙ্গে বৈঠক করে না।

জয়শঙ্কর বলেছেন, আমরা একে অপরের বিরুদ্ধে খড়্গহস্ত থাকব, তা ঠিক নয়। কিন্তু কোথাও না কোথাও তো একটা লাইন টানতে হবে। যদি প্রতিবেশী আমার শহর আক্রমণ করে, তাহলে তাদের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক রাখা যাবে না।

গত কয়েক বছর ধরে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক উত্তেজনাপূর্ণ। ২০১৬ সালের পর এই প্রথম পাকিস্তান থেকে কোন মন্ত্রী ভারতে গিয়েছিলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের সফর হয়েছে প্রায় এক যুগ আগে। ফলে এবারে বিলাওয়ালের সফরের কারণে পর্যবেক্ষকদের প্রত্যাশা ছিল, এই সফরের পর দুই দেশের সম্পর্কে উন্নতি হতে পারে। কিন্তু দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য সামনে আসার পর এখন মনে হচ্ছে দুই দেশের সম্পর্কের চলমান উত্তেজনা এখনও প্রশমিত হয়নি এবং পরিস্থিতি ভালো হবে কিনা তা নিয়েও সংশয় আছে।

পাকিস্তান বিবিসির সংবাদদাতা শুমাইলা জাফরি বলেন, পাকিস্তানের দৃষ্টিকোণ থেকে বিলাওয়াল ভুট্টো অনেক চিন্তাভাবনা করে এসসিও বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু দুই দেশের সম্পর্কের বৈরিতা দ্রুত কাটবে বলে মনে হয় না। অপরদিকে ভারতীয় সাংবাদিক শেখর আইয়ার বলেন, যে অবস্থা দেখা যাচ্ছে তাতে আগামী দেড় বছরের জন্য দুই দেশের সম্পর্কের উত্তেজনা কমার কোনও সম্ভাবনা নেই।

এদিকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের পর বিলাওয়াল ভুট্টো পাকিস্তানের জনগনের কাছ থেকে অনেক সমর্থন পাচ্ছেন। বলা হচ্ছে, তিনি ভারতে পাকিস্তানের অবস্থান তুলে ধরেছেন এবং অত্যন্ত ভারসাম্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন। গত বছরের ডিসেম্বরে বিলাওয়াল ভুট্টো জাতিসংঘে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে একটি বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছিলেন, এরপর তাকে অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। এবার ভারত থেকে ফিরে আসার পর বিলাওয়াল ভুট্টো সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, দুই দেশেরই দায়িত্ব আলোচনার পরিবেশ তৈরি করা। কিন্তু পরিস্থিতি দেখে মনে হয় না অদূর ভবিষ্যতে দুই দেশের সম্পর্কের কোন উন্নতি হবে। বেশিরভাগ পাকিস্তানি মনে করছেন, এসসিও পাকিস্তানের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ, তাই বিলাওয়ালের ভারতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত ঠিক ছিল। তারা উল্টো ভারতের আচরণের নিন্দা জানাচ্ছে।

Share With:
Rate This Article
No Comments

Leave A Comment