Our Concern
Ruposhi Bangla
Hindusthan Surkhiyan
Radio Bangla FM
Third Eye Production
Anuswar Publication
Ruposhi Bangla Entertainment Limited
Shah Foundation
Street Children Foundation
June 23, 2024
Homeআন্তর্জাতিকদ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি হিসেবে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে সৌদি

দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি হিসেবে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে সৌদি

দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি হিসেবে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে সৌদি

ভারত সরকারের অনুমান অনুসারে চলতি আর্থিক বছরে দেশটির জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার পৌঁছবে ৭ শতাংশে। তবে দেশে ও দেশের বাইরে চাহিদা দুর্বল হওয়ার কারণে তাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে এ বছর সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল প্রধান অর্থনীতির ট্যাগ হারাতে পারে ভারত। খবর অ্যারাবিয়ান বিজনেস।

শুক্রবার দেশটির পরিসংখ্যান মন্ত্রণালয় প্রকাশিত সরকারি প্রাককলনে উল্লেখ করা হয়, মার্চে শেষ হওয়া অর্থবছরে ভারতের জিডিপি বৃদ্ধি পাবে ৭ শতাংশ। পরিসংখ্যানটি তৈরি হয়েছে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার অর্থনৈতিক প্রাককলন ও অর্থনীতিবিদদের মতামতের ভিত্তিতে ব্লুমবার্গ সমীক্ষা পর্যালোচনা করে। ভারতের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থাটি আগের বছরের ৮ দশমিক ৭ শতাংশ সম্প্রসারণের গতি অনুসরণ করে। তবে জ্বালানির দাম বাড়ায় সৌদি আরবের প্রত্যাশিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ৭ দশমিক ৬ শতাংশ, যা ভারতের প্রবৃদ্ধিকে ছাড়িয়ে যাওয়ারই ইঙ্গিত দেয়।

চলতি অর্থবছরে ভারতের সূচনাটি হয়েছিল আশাব্যঞ্জক। তখন প্রত্যাশা করা হয়েছিল যে বাজার মন্দার কারণে ভোক্তা চাহিদা বৃদ্ধি এশিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধার করবে। কিন্তু উচ্চ মূল্যস্ফীতির লাগাম টানার জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর অভূতপূর্ব আর্থিক কঠোর নীতি অনেক উন্নত অর্থনীতিকেও মন্দার দিকে ঠেলে দেয়ার ফলে সে আশাবাদ দ্রুত ম্লান হয়ে যায়। যার প্রভাব পড়ে ভারতেও। এ পরিস্থিতি দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে প্রভাবিত করে বা কমিয়ে দেয়। রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া চলতি অর্থবছর এ পর্যন্ত তার বেঞ্চমার্ক রেট ২২৫ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়েছে। তবে অর্থনীতিবিদদের অনেকেই আশা করছেন যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক কঠোর নীতি পর্যালোচনার অংশ হিসেবে ৮ ফেব্রুয়ারিতে নতুন পয়েন্ট নিয়ে আসবে। কেননা মূল্যস্ফীতি চলমান রয়েছে। এদিকে ভারতের উৎপাদন ১ দশমিক ৬ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে অনুমান করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, খনি শিল্প ২ দশমিক ৪ শতাংশ ও কৃষি ৩ দশমিক ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে।

ফিচ রেটিং লিমিটেডের অর্থনীতিবিদ সুনীল সিনহা জানান, গ্রস ফিক্সড ক্যাপিটাল গঠনের শোভন বৃদ্ধি দেখায় যে মূলধন ব্যয় সম্পর্কে সরকারের টেকসই অবস্থান রয়েছে এবং চলমান পুনরুদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় সহায়তাও প্রদান করা হচ্ছে। কিন্তু ভারতীয় অর্থনীতির টেকসই প্রবৃদ্ধি এবং পুনরুদ্ধারের জন্য বেসরকারি করপোরেট খাতের পুনরুজ্জীবন অপরিহার্য বলেও তিনি যোগ করেন।

Share With:
Rate This Article
No Comments

Leave A Comment