Our Concern
Ruposhi Bangla
Hindusthan Surkhiyan
Radio Bangla FM
Third Eye Production
Anuswar Publication
Ruposhi Bangla Entertainment Limited
Shah Foundation
Street Children Foundation
June 18, 2024
Homeযুক্তরাষ্ট্রযুক্তরাষ্ট্রে সন্তানদের হত্যায় দোষী সাব্যস্ত মা

যুক্তরাষ্ট্রে সন্তানদের হত্যায় দোষী সাব্যস্ত মা

যুক্তরাষ্ট্রে সন্তানদের হত্যায় দোষী সাব্যস্ত মা

যুক্তরাষ্ট্রে দুই সন্তানকে হত্যা এবং স্বামীর সাবেক স্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্রের দায়ে এক নারীকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। ওই নারীর নাম লোরি ভালো। তিনি ‘ডুমস ডে’ (শেষ বিচারের দিন) ধর্মীয় বিশ্বাসে বিশ্বাসী এবং নিজেকে ঐশ্বরিক ক্ষমতাসম্পন্ন বলে দাবি করে থাকেন।

১৬ বছর বয়সী মেয়ে টিলি রিয়ান এবং সাত বছরের পালক পুত্র জোশুয়া ভালোর মৃত্যুর ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় আইডাহো অঙ্গরাজ্যের একটি আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে বিচার চলছে।

মর্মন ধর্ম (খ্রিষ্টধর্ম বিশ্বাস থেকে গড়ে ওঠা একটি ধর্মীয় শাখা) বিশ্বাস নিয়ে বেড়ে ওঠা লোরি ভালো একসময় ভীষণ কট্টর হতে থাকেন। তিনি বিশ্বাস করতে শুরু করেন, ঈশ্বরের দূতের সঙ্গে যোগাযোগের সক্ষমতা তাঁর আছে। ২০১৮ সালে ইউটাহর একটি ধর্মীয় সম্মেলনে উগ্র মর্মনপন্থী নেতা চ্যাড ডেবেলের সঙ্গে তাঁর দেখা হয়। ২০১৯ সালের শেষের দিকে হাওয়াইতে তাঁদের বিয়ে হয়।

লোরি ভালোর দাবি, পৃথিবীতে যিশুখ্রিষ্টের দ্বিতীয়বার পুনরুত্থানের সময়ে স্বর্গীয় অমরত্ব লাভের জন্য মানবজাতিকে প্রস্তুত করার দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি।

সন্তানদের হত্যায় দোষী সাব্যস্ত লোরি ভালোর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে। পাশাপাশি তাঁর প্যারোলে মুক্তি পাওয়ার সুযোগ থাকবে না।

লোরির পঞ্চম স্বামী চ্যাড ডেবেলের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগে বিচারকাজ শুরু হবে। চ্যাড পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাওয়ার বর্ণনা দিয়ে লেখা কয়েকটি বইয়ের লেখক। প্রথম স্ত্রী টামিকে হত্যা করাসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ আছে তাঁর বিরুদ্ধে।

কৌঁসুলিরা বলছেন, এ দম্পতির ‘ধর্মীয় বিশ্বাস’ এসব হত্যাকাণ্ডে ভূমিকা রেখেছে।

২০১৯ সালের শেষের দিকে এ ঘটনাটি নিয়ে প্রথম যুক্তরাষ্ট্রে সংবাদ শিরোনাম হয়। তখন লোরি ভালোর সন্তানদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। কর্তৃপক্ষকে শুরুতে বলা হয়েছিল, তারা তাঁর পালক পুত্র জোশুয়ার দাদাবাড়িতে আছে। লোরি এবং ডেবেল তাঁদের সন্তানেরা নিখোঁজ থাকার খবর জানাননি। তবে ২০২০ সালের জুনে আইডাহোতে ডেবেলের মালিকানাধীন একটি ভবন থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

দ্রুতই পুলিশের তদন্তে জানা যায়, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে লোরি এবং ডেবেলের সঙ্গে সম্পর্কিত কয়েকজন মারা গেছেন। এর কয়েক মাস পর হাওয়াই থেকে লোরি ভালো গ্রেপ্তার হন।

লোরি ভালোর তৃতীয় স্বামী জোসেফ রিয়ান (টিলির বাবা) ২০১৮ সালে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

চতুর্থ স্বামী চার্লস ভালোর সঙ্গেও তাঁর বিচ্ছেদপ্রক্রিয়া চলছিল। তবে আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হওয়ার আগেই ২০১৯ সালের জুলাইয়ে লোরি ভালোর ভাইয়ের গুলিতে তিনি মারা যান।
দ্বিতীয় স্বামী চার্লস ভালো বলেছেন, লোরি দাবি করেন তিনি ঐশ্বরিক ক্ষমতাসম্পন্ন। যিশুখ্রিষ্টের দ্বিতীয় পুনরুত্থানের সময়ে ১ লাখ ৪৪ হাজার বিশ্বাসীর স্বর্গীয় জীবনলাভের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে তাঁকে।

কোনো কোনো ধর্মবিশ্বাসী মনে করেন, যিশুখ্রিষ্টের পুনরুত্থানের দিনে শুধু মনোনীত হওয়া ১ লাখ ৪৪ হাজার বিশ্বাসীকে স্বর্গীয় অমরত্ব দেওয়া হবে।

কৌঁসুলিদের দাবি, লোরি ও ডেবেলের এসব অপরাধের পেছনে অর্থনৈতিক উদ্দেশ্যও জড়িত।

বড় ধরনের চুরির অভিযোগেও লোরি ভালোকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। কারণ, তিনি তাঁর সন্তানদের মৃত্যুর তথ্য গোপন করে তাদের জন্য নির্ধারিত সামাজিক সুবিধাগুলো ভোগ করেছেন। বিমা জালিয়াতির ঘটনায় তাঁর স্বামী ডেবেলের বিরুদ্ধেও অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

Share With:
Rate This Article
No Comments

Leave A Comment